Puri tour guide in bengali | কম খরচে পুরী ভ্রমণ, কোথায় থাকবেন কী কী দেখবেন

পুরী(puri) নাম টা বাঙালীর কাছে একটা আবেগ কারণ এখানে আছে আমাদের পূজনীয় শ্রী জগন্নাথ দেবের মন্দির, প্রাচীন কালে বাংলা ভাগ হওয়ার আগে বর্তমান ওড়িশা ও বাংলা একটি রাজ্য ছিল তাই এখানকার টান বাঙালীর ভুলতে পারেনি ।

Puri Tour Guide In Bengali

এই টানের কারণে ও সুমদ্র সৈকতের মজা নিতে আজও বাঙালিদের কাছে ছুটি কাটানোর সেরা স্থান এই পুরী ,তাই এই পুরীকে বাঙালীদের দ্বিতীয় ঘর ও বলা যায় ।

পুরী এলে যেমন জগন্নাথ দেবের দর্শন পাওয়া যায় তেমনি এখানকার সুমদ্র সৈকতের ও মজা নেওয়া যায় , এছাড়াও এখানে ঘুরে দেখার মত অনেক স্থান আছে । আজকে এই আর্টিকেল এ আপনাদের জানাব কীভাবে কম খরচে পুরী আসবেন, কোথায় থাকবেন, কী কী স্থান ঘুরে দেখবেন ইত্যাদি ।

Puri Location & Distance from Kolkata

ওড়িশা রাজ্যের পূর্ব দিকে বঙ্গোপসাগর লাগোয়া একটি শহর হল পুরী , কলকাতা থেকে সড়ক পথে পুরীর দুরত্ত হলো প্রায় ৫০০ কিমী ।

How To reach Puri | কম খরচায় পুরী পৌছব কীভাবে

কোলকাতা থেকে পুরী পৌছনর তিনটি উপায় আছে

  • সড়ক পথ ( বাস )
  • ট্রেন
  • প্লেন

এই তিনটি উপায় এর মধ্যে সব থেকে কম খরচে পুরী পৌছানো যেতে পারে ট্রেন করে , কোলকাতা থেকে পুরী পর্যন্ত প্রচুর ট্রেন আছে এই ট্রেন এর Sleeper Class এর নূন্যতম ভাড়া পড়বে 300 টাকা।নিচে কিছু ট্রেন এর নাম দেওয়া হল ।

HWH PURI SF EXP (12837)Rs 340
JAGANNATH EXP (18409)Rs 295
SHM PURI SF EXP (22835)Rs 325
SHM PURI SF EXP (12895)Rs 325
SHM PURI SF EXP (12887)Rs 325
এই সমস্ত ট্রেন গুলি ছাড়াও VANDE BHARAT EXP (22895), SATABDI EXPRESS (12277), PURI GARIB RATH (12881) এই সমস্ত ট্রেন করেও আপনার পৌছে যেতে পারেন ।

বাস করে এলে আপনার ধর্মতলা বাস স্ট্যান্ড থেকে অনেক নাইট বাস পেয়ে যাবেন যেগুলি করে আপনার পুরী পৌছে যেতে পারেন ।

এছাড়া ফ্লাইট (প্লেন) করে এলে আপনাদের ভূবেনেশ্বর নামতে হবে এবং সেখান থেকে বাস বা ট্রেন করে পুরী পৌছতে হবে । পুরী তে কোনও এয়ারপোর্ট নেই ফলত ফ্লাইট এ এলে ভূবেনেশ্বর এ নামতে হবে ।

আর দেখুন –

Best Time to Visit Puri

বছরের প্রায় যেকোনো সময় আপনার পুরী আসতে পারেন , সীজন এর সময় বা রথ যাত্রা এই সমস্ত সময় এখানে এলে হোটেল এর দাম বেশি হবে ।

Where to Stay In Puri | পুরী তে কম খরচে কোথায় থাকবো

পুরী তে থাকার সব থেকে ভাল স্থান হল সর্গদার বীচ , এখান থেকে জগন্নাথ দেবের মন্দির সামান্য দুরত্ত্বে অবস্থিত ও সুমদ্র তীর ও কাছে । এই সর্গদার বীচ এ আপনার অনেক হোটেল পেয়ে যাবেন যেগুলির দাম ৫০০ থেকে ৫০০০ পর্যন্ত আছে ।

সীজন হিসেবে দাম ওঠা নাম করে আপনার অবশ্যই দাম দর করে হোটেল বুক করবেন । কম দামে অনেক সী-ফেসিঙ্গ হোটেল পেয়ে যেতে পারেন । এছাড়াও আপনার চাইলে গোল্ডেন বীচ এও থাকতে পারেন এখানেও অনেক কম দামে হোটেল পেয়ে যাবেন ।

এই সর্গদার বীচ পৌছনর জন্য আপনার পুরী রেল স্টেশন এর বাইরে অনেক অটো টোটো পেয়ে যাবেন যেগুলি ৫০-৬০ টাকা নিয়ে আপনাদের এখানে পৌছে দেবে । অবশ্যই দাম করে টোটো বা অটো টে উঠবেন ।

Puri Sightseeing

এবার আসি পুরী তে কী কী দেখেবেন কোথায় কোথায় ঘুরবেন ইত্যাদি…

Puri Local Sightseeing

  • জগন্নাথ মন্দির : পুরী এলে সবার প্রথম যেই স্থানটি ঘুরে দেখবেন তা হল জগন্নাথ দেবের মন্দির , জগন্নাথ মন্দির যান পুজো দিন , মন্দিরের পতাকা পল্টন দেখুন , জগন্নাথ দেবের রান্নাঘরে বসে ভোগ গ্রহণ করুন ।
  • পুরী সমুদ্র সৈকত : পুরীর সমুদ্র সৈকত এ সময় কাটান , স্নান করুন , সন্ধে বেলায় সমুদ্র সৈকতে বসা বাজার ঘুরে দেখুন , বিভিন্ন ধরনের সামুদ্রিকি মাছ ভাজা ও বিভিন্ন খাবার খেয়ে দেখুন , সূর্যদয় ও সূর্যাস্ত উপভোগ করুন ।
  • মাসির বাড়ি (Gundicha temple) ও পিসীর বাড়ি (Narendra Sarobor) : জগন্নাথ দেবের মাসির বাড়ি ও পিসীর বাড়ি এই দুটি সুন্দর স্থান ঘুরে দেখুন ।
  • নেতাজি মিউজিয়াম : ঘুরে দেখুন নেতাজি মিউজিয়াম এখানে নেতাজীর সাথে সম্পর্কিত বহু নিদর্শন দেখতে পাবেন ।
  • গুপ্ত বৃন্দাবন : ঘুরে দেখে নিন পুরীর গুপ্ত বৃন্দাবন , খুব সুসজ্জিত স্থানটি বৃন্দাবন এর অনুরূপ সাজানো এই স্থানটি ।
  • লাইট হাউস ও গান্ধী পার্ক : ঘুরে দেখে নিন সমুদ্রের পাশে অবস্থিত লাইট হাউস , এছাড়াও গান্ধী পার্ক এই স্থানটি ও ঘুরে দেখতে পারেন ।

পুরীর এই সমস্ত স্থান গুলি ঘুরে দেখার জন্য আপনার অটো ভাড়া করতে পারেন , অটো ভাড়া প্রায় 500 টাকার মত বা তার বেশি লাগতে পারে, অবশ্যই দাম দর করে নেবেন ।

আর দেখুন –

Puri Outside Sighteen

পুরী থেকে বাইরে ঘুরে দেখার মত অনেক স্থান আছে যেমন …

  • নন্দন কানন জুওলজিকাল পার্ক
  • উদয় গিরি ও খন্ড গিরি
  • লিঙ্গরাজ মন্দির
  • ধৌলি স্তূপ
  • কোণার্ক সূর্য মন্দির
  • চিল্কা হ্রদ

এই সমস্ত স্থান গুলি আপনার ঘুরে দেখতে পারেন , এই স্থান গুলি ঘুরে দেখার জন্য আপনার OTDC( ওড়িশা টুরিসম ) এর কাউন্টার থেকে বাস বুক করতে পারেন, এসি বাস ভাড়া পড়বে প্রায় 550 টাকা ও নন-এসি বাস এর ভাড়া পড়বে 300-350 টাকা । সকাল ৭ থেকে এই সমস্ত স্থানে উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু হবে ।

OTDC ছাড়াও আপনার লোকাল টূর অপারেটার এর কাছ থেকেও এই সব স্থান ঘুরে দেখার জন্য বাস বুক করতে পারেন , বাস এ যেতে না চাইলে পার্সোনাল গাড়ির ও এখান থেকে পেয়ে যাবেন , এই সমস্ত লোকাল টূর অপারেটার এর কাউন্টার আপনার পুরীর যেকোনো স্থানে পেয়ে যাবেন ।

এছাড়াও আপনারা] যে হোটেল এ থাকবেন সেখান থেকে এই সমস্ত স্থানে ঘুরতে যাবার ব্যেবস্থা উপলব্ধ থাকে , হোটেল মালিকের সাথে কথা বলে তা আপনার ঠিক করে নিতে পারেন ।

পুরী থেকে চিল্কা ভ্রমণে প্রায় গোটা একদিন লেগে যায় , এছাড়াও অন্যান্য স্থান গুলি ঘুরতেও প্রায় গোটা দিন লেগে যায় , তাই চিল্কা ভ্রমণ এ একটি পৃথক দিন হাতে রাখাই ভালো ।

আসা করি আপনাদের পুরী সম্পর্কে এই বিস্তারিত আরিটকেলটি ভালো লেগে থাকবে ও আপনাদের ভ্রমণে সাহায্য করবে , আরিটকেলটি ভালো লেগে থাকলে অবশ্যই নিজেদের প্রিয়জনের মাঝে এটি শেয়ার করবেন এবং কমেন্ট করে জানাবেন।

Leave a Comment